দক্ষতা ও উন্নয়ন শিখন-শিক্ষণ প্রক্রিয়া

শিক্ষক প্রশিক্ষণ বনাম শিক্ষক শিক্ষা

বাংলাদেশের শিক্ষা
বাংলাদেশের শিক্ষা

জি. এম. রাকিবুল ইসলামরিদওয়ানুল মসরুর: অতিপ্রাচীনকাল থেকেই শিক্ষকতা সমাজে একটি সুপরিচিত পেশা (যদিও শিক্ষকতাকে পেশা না বলে ব্রত বলাই ভালো)। প্রত্যেক পেশার মানুষের কিছু পেশাগত দায়িত্ব-কর্তব্য থাকে যা তার পেশাগত বৈশিষ্ট্য নির্ধারণ করে। একইভাবে যাঁরা শিক্ষক, তাঁদের কিছু পেশাগত বৈশিষ্ট্য থাকা প্রয়োজন। যেমন, যিনি যে বিষয়ের শিক্ষক তাঁর সে বিষয়ে গভীর জ্ঞান থাকা বাঞ্ছনীয়। আবার শুধু জ্ঞান থাকলেই হবে না, তা শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে হবে। যে জ্ঞান ছড়িয়ে দিতে চাই, তার থেকেও তা কীভাবে ছড়িয়ে দিতে হবে সেটা অধিক গুরুত্বপূর্ণ। আবার জ্ঞান ছড়িয়ে দিলেই হবে না, যে বা যারা তা গ্রহণ করছে তা তারা আদৌ গ্রহণ করতে পারছে কিনা, পারলেও কতোটা গ্রহণ করতে পারছে ইত্যাদিও দেখার বিষয়। আর তা সার্থকভাবে সম্পন্ন করতে হলে প্রয়োজন- দক্ষতা, যোগ্যতা ও প্রায়োগিক জ্ঞান। শিক্ষকদের সে সকল দক্ষতা, যোগ্যতা ও প্রায়োগিক জ্ঞান অর্জনের জন্যই প্রয়োজন শিক্ষক শিক্ষা। অনেকেই প্রশিক্ষণ ও শিক্ষাকে এক করে দেখেন; তবে আসলে এই দুটি বিষয় ধারণা বা প্রকৃতিগতভাবে পুরোপুরি আলাদা।

সাদাচোখে শিক্ষা এবং প্রশিক্ষণের পার্থক্যটা অনেকটা এইরকম- শিক্ষা হলো মানুষের আচরণের কাঙ্ক্ষিত, বাঞ্ছিত এবং অপেক্ষাকৃত স্থায়ী পরিবর্তন যা কিনা মানুষের জীবনের পুর্ণাঙ্গ বিকাশে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে। যেমন ফ্রেডারিক হার্বার্ট শিক্ষা সম্পর্কে বলতে গিয়ে বলেন, শিক্ষা হচ্ছে মানুষের নৈতিক চরিত্রের বিকাশ সাধন। আর অপরপক্ষে নেডলার (১৯৭৯)-এর মতে প্রশিক্ষণ হলো নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে সুপরিকল্পিতভাবে কিছু কার্য-সম্পাদনের জন্য কতোগুলো দক্ষতা ও যোগ্যতা অর্জনের প্রক্রিয়া। ড. ডিউই বলেন, “শিক্ষার লক্ষ্য হলো ব্যক্তিকে তার শিক্ষা অব্যাহত রাখতে সক্ষম করে তোলা।” আর সেই অব্যাহত প্রক্রিয়ার একটা অংশ হলো প্রশিক্ষণ।

যেখানে শিক্ষার উদ্দেশ্য ব্যাপক, সেখানে প্রশিক্ষণের উদ্দেশ্য অনেকটাই সংকীর্ণ। কেনোনা শিক্ষা একটি জীবনব্যাপী প্রক্রিয়া এবং একইসাথে এটি প্রশিক্ষণের ভিত্তিও বটে। আর প্রশিক্ষণ জীবনের প্রয়োজনীয় কিছু দক্ষতা অর্জনের প্রক্রিয়া। আরেকটা ব্যাপার হল, প্রশিক্ষণ বুদ্ধিবৃত্তিকভাবে অনুন্নত প্রাণীদেরও দেয়া হয় বা দেয়া যায়; যেমন- সার্কাসের ঘোড়া, হাতি, বানর, তোতা, ভালুক এদেরকে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। কিন্তু শিক্ষার ক্ষেত্রে সেটা সম্ভব নয়। উদ্দেশ্য, লক্ষ্যদল, পদ্ধতিগত দিক থেকেও শিক্ষা এবং প্রশিক্ষণ আলাদা। আমাদের এই প্রবন্ধের মূল লক্ষ্য শিক্ষক শিক্ষা এবং শিক্ষক প্রশিক্ষণের মধ্যে শিক্ষকগণের বা শিক্ষকতার জন্য কোনটি অধিক তাৎপর্যপূর্ণ তা খুঁজে বের করা।

বাংলাদেশের অনেক শিক্ষক যাঁরা স্কুল, কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়িয়ে থাকেন, তাঁরা কতোজন শিক্ষকতার পূর্বেই শিক্ষকতা সম্পর্কে, শিখন-শিক্ষণ পদ্ধতি ও তত্ত্ব সম্পর্কে অবগত তা নিয়ে সন্দেহ পোষণ করা যায়। অধ্যাপক মোজাফফর আহমেদের মতে, “ভালো ছাত্র মাত্রই ভালো শিক্ষক নয়”। শিক্ষক একটা বিষয় খুব ভালোভাবে জানেন, কিন্তু তিনি শিক্ষার্থীদের কীভাবে শেখাবেন তা জানেন না; তাহলে তিনি জানা সত্ত্বেও শিক্ষার্থীদের কোনো লাভ হবে না। অধিকাংশ শিক্ষকই শিক্ষার্থীদের একটা বিষয় শেখানোর চেষ্টা করেন যদিও তা অপেক্ষা কোনো বিষয় কীভাবে শিখতে হয় তা শেখানোটা জরুরি (At first how to learn then what to learn)। তাই বিষয়গত জ্ঞানের পাশাপাশি শিখন-শিক্ষণ তত্ত্ব ও পদ্ধতি সম্পর্কেও গভীর জ্ঞান থাকা প্রয়োজন। তা ছাড়া জ্ঞানের সম্প্রসারণ বা সঞ্চালন কার্যকরভাবে সম্ভব নয়।

একটা বাড়ির ভিত কতোটা শক্ত তার ওপর নির্ভর করবে এর ওপর আরও কয় তলা করা যাবে। তেমনি শিক্ষার ক্ষেত্রেও আমরা এই কথাটা বলতে পারি। প্রাথমিক শিক্ষার ওপর দাঁড়িয়ে থাকে মাধ্যমিক/উচ্চ মাধ্যমিক/উচ্চ শিক্ষা। অনেকটা ইটের পর ইট দিয়ে দালান তৈরির মতো। নিচের ভিত খারাপ হলে উপরের গাঁথুনি যতো ভালোই হোক না কেন, ওই ভবনের পতন অনিবার্য। তেমনি প্রাথমিক পর্যায়ের শিক্ষা যদি গুণগত মানে ভালো না হয়, তাহলে উচ্চ শিক্ষার গুণগত উন্নয়ন সম্ভব নয়। আর গুণগত প্রাথমিক শিক্ষা অনেকাংশে শিক্ষকের (মানসম্মত শিক্ষকের) ওপর নির্ভরশীল। আর তখনি শিক্ষকের বিষয়গত জ্ঞানের পাশাপাশি শিখন-শিক্ষণ পদ্ধতি বা তত্ত্ব সম্পর্কে জ্ঞানের বিষয়টি সামনে আনাটা জরুরি।

বর্তমান সময়ে, অনেকেই অনিচ্ছাকৃতভাবে শিক্ষকতা করেন যার সুদুরপ্রসারি প্রভাব পড়ে আমাদের শিক্ষাব্যবস্থায়। কিন্তু তাঁরা যদি তাঁদের শিক্ষাজীবনে শিখন-শিক্ষণ পদ্ধতি/শিক্ষা বিষয়ে একটি আবশ্যক বিষয় পড়ে আসতেন, তাহলে তাঁরা হয়তো এর গুরুত্বটা অনুভব করতে পারতেন। আবার যাঁরা বিষয়গত শিক্ষায় ভালো কিন্তু শিক্ষকতায় অনাগ্রহী, এই বিষয়টি অধ্যয়নের পরে হয়তো শিক্ষকতায় আগ্রহী হতে পারতেন। তখন হয়তো শিক্ষাব্যবস্থার বর্তমান চিত্রও পাল্টে যেত!

শিক্ষক প্রশিক্ষণ শিক্ষকদের সাময়িক ঘাটতি মেটাতে সক্ষম হলেও দীর্ঘমেয়াদে শিক্ষকদের পেশাগত উন্নয়ন তথা শিক্ষাব্যবস্থার উন্নয়নের জন্য শিক্ষক শিক্ষার বিকল্প নেই। ল্যাম্বার্ট, ভ্যারো ও যিমারম্যান (২০১২) বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ ও পেশাগত শিক্ষার মধ্যে তুলনামূলক আলোচনা করতে গিয়ে মন্তব্য করেছেন যে, প্রশিক্ষণ এমন সব দক্ষতা ও যোগ্যতা অর্জনে সাহায্য করে যা নতুন কোন দক্ষতা বা যোগ্যতা নয় বরং পূর্বে অর্জিত শিক্ষার ওপর ভিত্তি করে কোনো কাজ অধিক দক্ষরূপে করার সামর্থ্য তৈরি করে। এরই প্রতিফলন পাই সুয়ারেয (২০১১)-এর গবেষণায় যিনি দেখিয়েছেন দীর্ঘমেয়াদী পেশাগত শিক্ষা কিভাবে শ্রেণীকক্ষে শিক্ষকদের সাহায্য করে থাকে যা স্বল্পমেয়াদী প্রশিক্ষণের পক্ষে সম্ভব নয়। তবে একথা সত্যি যে, সময়ের সাথে সাথে তথা সময়ের প্রয়োজনে শিক্ষকগণকে নিত্যনতুন দক্ষতা অর্জনে শিক্ষক প্রশিক্ষণের প্রয়োজন রয়েছে। অধ্যাপক আবু হামিদ লতিফের মতে, “শিক্ষকের প্রশিক্ষণ এবং পেশাগত শিক্ষার মধ্যে অনেক পার্থক্য রয়েছে। বাংলাদেশে প্রশিক্ষণের পরিবর্তে শিক্ষকদের পেশাগত শিক্ষায় শিক্ষিত করে তোলার কার্যক্রম গ্রহণ শিক্ষাক্ষেত্রে একটি জরুরি বিষয়।”

একজন শিক্ষক সমাজে সারা জীবনের জন্যই শিক্ষক। অন্যান্য পেশার সাথে এর পার্থক্য করতে গিয়ে অধ্যাপক মোজাফফর আহম্মেদ বলেন’ “শিক্ষকতা একটা ধর্ম; একে জীবনে ধারণ করতে হয়। জ্ঞানীমাত্রই শিক্ষক নন”। তাই বিষয়গত জ্ঞানের পাশাপাশি শিক্ষায় জ্ঞানের প্রয়োজনীয়তা অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই। আর শিক্ষায় জ্ঞানের চাহিদা মেটাতে শিক্ষক প্রশিক্ষণ নয়, শিক্ষক শিক্ষাই একমাত্র পন্থা হতে পারে। তা না করে যদি এই চাহিদা মেটাতে শিক্ষক প্রশিক্ষণের আশ্রয় নেয়া হয় তবে তা হবে পিপাসার্তকে ফোঁটায় ফোঁটায় পানি সরবরাহের সমান। নিশ্চয়ই তা কারোরই কাম্য নয়।

তথ্যসূত্র
মোজাম্মেল হক নিয়োগী, প্রশিক্ষণ পরিচিতি, আলীগড় লাইব্রেরী, ১৫৮ ঢাকা নিউ মার্কেট, ঢাকা-১২০৫, ২০০৮।
অধ্যাপক আ খা আবদুল মান্নান ও অন্যান্য, শিক্ষার ইতিহাস, ঢাকা আহছানিয়া মিশন, ঢাকা-১২০৯, ১৯৯২।
আবু হামিদ লতিফ, শিক্ষা শিখন শিক্ষণ প্রশিক্ষণ, অর্ক, ৬/১১ ইস্টার্ন প্লাজা, হাতিরপুল, ঢাকা, ২০০৭।
শাওয়াল খান, শিক্ষাজগৎ, বাংলা একাডেমী প্রেস, ঢাকা, ২০০৯।
Rafiuddin, M., Principle of Education, 1992, Atlantic Publishers and Distributors, B-2, Vishal Enclave, New Delhi- 110027.
Durlach, P. J. & Lesgold, A. (2012), Adaptive Technologies for Training and Education, Cambridge University Press
Lambert, Marion; Vero, Josiane; Zimmermann, Benedicte (2012), Vocational Training and Professional Development: A Capability Perspective, International Journal of Training and Development, v16 n3 p164-182 Sep 2012
Maubant, Philippe; Roger, Lucie; Lejeune, Michel; Caselles-Desjardins, Brigitte; Gravel, Nicole (2011), History and Perspectives of Adult Education and Professional Teacher Education: Between Complicity, Distance, and Recognition, McGill Journal of Education, v46 n1 p133-156 2011
Norton, Andrew Lawrence; Coulson-Thomas, Yvette May; Coulson-Thomas, Colin Joseph; Ashurst, Colin (2012), Delivering Training for Highly Demanding Information Systems, European Journal of Training and Development, v36 n6 p646-662 2012
Saks, Alan M.; Burke, Lisa A. (2012), An Investigation into the Relationship between Training Evaluation and the Transfer of Training (2012), International Journal of Training and Development, v16 n2 p118-127 Jun 2012
Suarez, Kristen Lea (2011) Teacher Professional Development and Its Effects on Reading Instruction, Pro-Quest LLC, Ph.D. Dissertation, The University of Southern Mississippi.

জি. এম. রাকিবুল ইসলামরিদওয়ানুল মসরুর: শিক্ষার্থী, শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

লেখক সম্পর্কে

সম্পাদক বাংলাদেশের শিক্ষা

এই লেখাটি সম্পাদক কর্তৃক প্রকাশিত। মূল লেখার পরিচিত লেখার নিচে দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন